৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল-আউয়াল ১৪৪৩
শিরোনাম :
https://mailtrack.io/trace/link/f26343803e1af754c1dd788cd7a73c22043d5987?url=https%3A%2F%2Finnovad-global.com%2Flumance&userId=1904341&signature=5e74e7dc17531970

ভার্মি কম্পোস্ট সার উৎপাদন প্রযুক্তির ওপর চারঘাটে মাঠ দিবস

Published at আগস্ট ২৪, ২০২১

মো. আমিনুল ইসলাম (রাজশাহী) : রাজশাহীতে আধুনিক প্রযুক্তি সম্প্রসারণের মাধ্যমে ভার্মি কম্পোস্ট জৈবসার উৎপাদন প্রযুক্তির উপর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৩ আগস্ট) কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্ত চারঘাট উপজেলার আয়োজনে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত উপজেলার থানাপাড়া গ্রামে উক্ত মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাইফুল্লাহ আহম্মদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ মো. সিরাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, রাজশাহী অঞ্চল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ মো. তৌফিকুর রহমান, অতিরিক্ত উপপরিচালক (শষ্য), কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, রাজশাহী।

মাঠ দিবসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরেন চারঘাট উপজেলার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাইফুল্লাহ আহম্মদ বলেন, ভার্মি কম্পোস্ট মাটির স্বাস্থ্য উন্নয়নে কৃষিতে একটা নতুন সংযোজন। তিনি এলাকার কৃষির উন্নয়নে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন, কৃষকদের যে কোন পরামর্শের জন্য উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা ও তার সাথে যোগাযোগ করার জন্য আগত কৃষক-কৃষাণিদের অনুরোধ জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ভার্মি-কম্পোষ্ট সার তৈরির মূল উপাদান গোবর,হাসমুরগীর বিষ্ঠা,চিটা গুড়, নিমপাতা ইত্যাদি গৃহস্থালী আবর্জনা। ভার্মি-কম্পোষ্ট পরিবেশবান্ধব উৎপাদনে সহজলভ্য ও খরচ কম । তবে ভার্মি-কম্পোষ্টে উপকারী ছত্রাক থাকায় তা ব্যবহারের ফলে মাটির গুনগত মান উন্নত করে এবং মাটির ক্ষতিকর ছত্রাক  ধ্বংস করে ফসলকে অনেক  রোগবালাই থেকে রক্ষা করে ।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার কৃষকের নিকট কৃষি প্রযুক্তি ও কৃষি উপকরণ পৌঁছে দিয়ে উৎপাদনে বিপ্লব ঘটিয়েছেন। কৃষক কৃষাণিদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা প্রদান করছেন ও কৃষকদের মধ্যে সার বীজ এবং প্রনোদণা সহায়তা সময় মত সরবরাহ করছেন বিধায় আজ কৃষিতে দ্রুত  উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে। এছাড়া তিনি বর্তমান কৃষির সাফ্যলের দিক তুলে ধরে, সরকারের সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত, সহযোগিতা এবং পদক্ষেপের বিষয় এবং সেই সাথে উদ্যোমি কৃষকের অবদানের কথাও উল্লেখ করেন। উৎপাদন বাড়াতে নতুন নতুন আধুনিক প্রযুক্তি এবং মাঠ পর্যায়ে তার যথাযথ ব্যবহারের জন্য উপস্থিত কৃষকদের অনুরোধ করেন।

অনুষ্ঠানে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা/ কর্মচারীবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রোনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, কৃষাণ-কৃষাণীসহ প্রায় ১০০ জন  উপস্থিত ছিলেন ।

মাঠ দিবস অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ খন্দকার ফিরোজ মাহমুদ।

This post has already been read 252 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN