১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২৪ রবিউস-সানি ১৪৪৩
শিরোনাম :
https://mailtrack.io/trace/link/f26343803e1af754c1dd788cd7a73c22043d5987?url=https%3A%2F%2Finnovad-global.com%2Flumance&userId=1904341&signature=5e74e7dc17531970

দুবাই এক্সপোতে ৫০ বছরের অর্জন তুলে ধরবে বাংলাদেশ

Published at সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, দুবাই ২০২০ এক্সপোতে বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশের ৫০ বছরের অর্জন তুলে ধরা হবে। ছয় মাসব্যাপী এ ওয়াল্ড এক্সপোতে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের অর্জন, পণ্য, ধারণা উদ্ভাবন, জাতীয় ব্র্যান্ড, পর্যটন এবং ইতিহাস ব্যবসায়ীক পরিবেশ প্রচারের মাধ্যমে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করার চেষ্টা করা হবে। অলিম্পিক গেমস, ফিফা ওয়াল্ড কাপ এর পরে তৃতীয় বৈশ্বিক ইভেন্ট হিসেবে ওয়াল্ড এক্সপো মূলত বিভিন্ন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন অগ্রগতি, বাণিজ্য সম্ভাবনা ও সংস্কৃতি বিশ্ববাসীর সামনে উপস্থাপনের সুযোগ হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এক্সপো কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য দেশের ইমেজ বৃদ্ধিতে  আগামী ৩ ডিসেম্বর ইন্টারন্যাশনাল ডে অফ পারসনস উইথ ডিজএবিলিটিস, ১৬ ডিসেম্বর কান্ট্রি ডে, ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস, ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান এবং ২৬ মার্চ বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন থাকবে। দুবাই ২০২০ এক্সপো আয়োজনের মূল থিম কানেকটিং মাইন্ডস, ক্রিয়েটিং দি ফিউচার ( Connecting Minds, Creating the Future) এবং সাব থিম তিনটি অপারচুনিটি, মোবাইলিটি এবং সাসটেইনেবিলিটি (Opportunity, Mobility and Sustainability).

বাণিজ্যমন্ত্রী সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘দুবাই ২০২০ এক্সপো’ এ অংশগ্রহণ উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস বিফিং এ সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নের এক্সিবিশন টাইটেল নির্ধারণ করা হয়েছে- ইন্দোমিটেবল বাংলাদেশঃ টুয়ার্ডস সাসটেনেবল ডেভেলপমেন্ট (Indomitable bangladesh: towards Sustainable Development)। বাংলাদেশের দ্বিতল বিশিষ্ট প্যাভিলিয়নের নীচ তলায় প্রদর্শনীর জন্য এবং দ্বিতীয় তলায় দাপ্তরিক,  সেমিনার ও বিজনেস টু বিজনেস সভার কাজে ব্যবহার করা হবে। এ এক্সপোর মাধ্যমে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, অগ্রগতি, সাফল্য এবং বাণিজ্য সম্ভাবনা যথাযথভাবে তুলে ধরা হবে। এজন্য বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সাথে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সমন্বয় সাধন করবে। এ জন্য প্রযোজ্য পণ্য, অডিও-ভিজ্যুয়াল, ডকুমেন্টারি ইত্যাদি প্রদর্শণ করা হবে।

উল্লেখ্য, বিগত ২০১৫ সালে ইটালির মিলানে সর্বশেষ ওয়াল্ড এক্সপো অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা এবং দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রথমবারের মতো ওয়াল্ড এক্সপো ২০২০ এর আয়োজন করছে। কোভিডের কারনে এ এক্সপো আগামী ০১ ক্টোবর শুরু হয়ে ২০২২ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত চরবে।

এসময় বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, অতিরিক্ত সচিব(রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান(অতিরিক্ত সচিব) এ এইচ এম আহসান, বাণিজ্য মন্ত্রণারয়ের যুগ্ম সচিব(রপ্তানি) মো. আব্দুর রহিম খান এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 202 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN