২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ্জ ১৪৪১
শিরোনাম :

রাজশাহীতে দেশী ভেড়ার মাংস বিক্রয়ের মডেল কসাইখানার উদ্বোধন

Published at জুন ১৮, ২০২০

রাজশাহী সংবাদদাতা: এই প্রথম রাজশাহীতে বরেন্দ্র অঞ্চলের ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) বিক্রয়ের জন্য কসাইখানার উদ্বোধন করা হয়েছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের তত্বাবধানে ও কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় পরিচালিত ভেলিডেশন অব গুড প্রাকটিসেস অব অন-ফার্ম ল্যাম্ব প্রোডাকশন সিস্টেমস প্রকল্পের আওতায় এই কসাইখানায় সম্পূর্ণ হালাল পদ্ধতিতে জবাইকৃত বরেন্দ্র অঞ্চলের সুস্থ দেশী জাতের ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) বিক্রয় করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নারিকেলবাড়ীয়াস্থ ক্যাম্পাসে এই কসাইখানার উদ্বোধন করা হয়েছে। কসাইখানাটি উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। অনুষ্ঠানে ২০ জন হতদরিদ্র নতুন খামারীর মধ্যে প্রত্যেককে ২টি করে মোট ৪০টি ভেড়া বিতরণ করা হয় এবং ১৩ জন পুরাতন খামারীর মধ্যে তাদের বিক্রিত ভেড়ার টাকা বিতরণ করা হয়।

সভায় সভাপতি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ বলেন যে, ভেড়ার মাংস সার্বিক গুন বিচারে কোন অংশেই ছাগল ও গরুর মাংসের চেয়ে কম নয় বরং এতে কলেস্টেরল ও চর্বি কম থাকায় এবং প্রয়োজনীয় প্রায় সকল পুষ্টি উপাদান বেশী থাকায় সুস্বাস্থের জন্য অত্যন্ত উপযোগী।  সঠিক তথ্য জানা না থাকা এবং বিরুপ প্রচারের কারনে ভেড়ার মাংসকে সাধারণত ছাগলের মাংস বলে বিক্রয় করা হয়। এতে একদিকে যেমন ভেড়া পালনকারীগণ তাদের পালিত ভেড়ার সঠিক মূল্য পায় না অপরদিকে ভোক্তাগণ উৎকৃষ্ট মাংস বেছে নেয়ার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হন।

এ সকল বিষয় বিবেচনা করে সুস্বাস্থের জন্য উপযোগী মাংস সরবরাহের লক্ষ্যে উল্লেখিত প্রকল্পের আওতায় ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) সীলকৃত মোড়কে কসাইখানায় প্রক্রিয়াজাত করে বিক্রয়ের উদ্দেশে এ কসাইখানা নির্মাণ করা হয়েছে। প্রধান অতিথি এমন মহান উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে কসাইখানা নির্মাণ করার জন্য প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশেষ করে মূখ্য গবেষক প্রফেসর জালালকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি খামারীদের মাঝে ভেড়া বিতরণ ও নগদ অর্থ  প্রদান কার্যক্রমের ভূয়সী প্রসংসা করেন। তিনি প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন করে অভিভূত হন এবং সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

প্রকল্পের কো-ইনভেস্টিগেটর ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের চীফ ডেপুটী ভেটেরিনারি অফিসার ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের  সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. জান্নাতুল ফেরদৌস, প্রফেসর ড. মো. আবুল হাশেম, এনিমেল সায়েন্স বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহ, প্রফেসর ড. মো. আখতারুল ইসলাম, ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগ, রা:বি, কৃষিবিদ মো. ইসমাইল হক, পিএইচডি ফেলো, ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগ, রাবি। আরও উপস্থিত ছিলেন ডা. মো. নিয়ামতুল্ল্যা, এম.এস ইন থেরিওজেনোলজি, রা:বি, সহকারি পরিচালক, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, রাজশাহী, কৃষিবিদ পলাশ সরকার সহ অন্যান্য  গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রকল্পের মূখ্য গবেষক-রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার।

This post has already been read 527 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN