৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯, ১৭ জিলক্বদ ১৪৪০
শিরোনাম :

বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৩০টি দেশে ল্যাকটালিস কোম্পানির গুঁড়ো দুধে বিষাক্ত সালমোনেলা জীবাণুর অস্তিত্ব

Published at ডিসেম্বর ২২, ২০১৭

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এভাবেই সরিয়ে নেয়া হচ্ছে ল্যাকটালিস কোম্পানির গুঁড়ো দুধ। ছবি: এপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিশুদের অত্যন্ত প্রয়োজনীয় খাদ্য গুড়ো দুধে সালমোনেলা এগোনা নামক মারাত্মক ক্ষতিকর জীবাণু সংক্রমিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ফ্রান্সের দৈত্য হিসেবে পরিচিত ল্যাকটালিস (Lactalis) নামক কোম্পানির গুড়ো দুধে এ জীবাণুর উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। সালমোনেলা এগোনা মানবদেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর জীবাণু যা নানা রোগের জন্য দায়ী।

জানা যায়, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ব্রিটেন, গ্রীস, চীন, সৌদি আরব, মরক্কো, সুদান, পেরু সহ বিশ্বের প্রায় ৩০টি দেশে এ জীবাণু সংক্রমণের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। অভিযোগ পাওয়ার পর ল্যাকটালিস এক বিবৃতির মাধ্যমে দুঃখ প্রকাশ করে ক্রেতাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে ইতোমধ্যে সংক্রমিত দেশ থেকে তাদের এসব পণ্য প্রত্যাহার করার ঘোষণা দিয়েছে।

এ ব্যাপারে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ একটি গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে এবং দেশের সর্বসাধারণকে সতর্ক করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে ল্যাকটালিস কর্তৃক উৎপাদিত শিশু খাদ্য ((Baby Milk Formula) Baby Care-3, Baby Care-MF, Milumel, Picot এবং Celia ব্র্যান্ডের গুঁড়ো দুধ আমদানি, সরবরাহ, বিক্রি, খাওয়ানো এবং শিশু চিকিৎসকদের প্রেসক্রাইব না করার জন্য সতর্ক করা হয়েছে।

ফ্রান্স স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে অভিযুক্ত কোম্পানির গুড়ো দুধ খেয়ে ডিসেম্বর মাসে ২৬ জন শিশু অসুস্থ হয়ে পড়ে। সালমোনেলা জীবাণুর লক্ষণ হিসেবে শিশুদের মধ্যে প্রাথমিকভাবে ডায়রিয়া, পেট ব্যাথা ও জ্বর দেখা দেয়।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সভিত্তিক ল্যাকটালিস পৃথিবীর সর্ববৃহৎ দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম। বিশ্বের ৪৭টি দেশে তাদের কারখানা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র তাদের সবচেয়ে বড় ক্রেতা দেশ। কিন্তু সেখানে এ জীবাণু সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়নি।

This post has already been read 1644 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN