২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১ রবিউস-সানি ১৪৪১
শিরোনাম :

প্রান্তিক কৃষকদের বিনামূল্যে ভুট্টা বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ

Published at নভেম্বর ১৯, ২০১৯

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা: সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে রবি মৌসুরে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ভুট্টা ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধিও লক্ষ্যে উপজেলা পরিষদ হল রুমে মাঝে সোমবার (১৮ নভেম্বর) ভুট্টা বীজ ও রাসায়নিক সার বিনামূল্যে বিতরণ অনুষ্ঠান অনুিষ্ঠত হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মো. জাহাঙ্গীর আলম -এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য (কামারখন্দ- সিরাজগঞ্জ সদর-২)  অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত (মুন্না)। অন্যান্য অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কামারখন্দ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম শহিদুল্লাহ সবুজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সম্পা খাতুন, কামারখন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জামতৈল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন কেষ, কামারখন্দ উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আনোয়ার সাদাত, প্রমুখ ও অন্যান্য প্রণোদনা গ্রহণকারি কৃষক। অনুষ্ঠানে প ৫শ’ জন কৃষকের  মাঝে বিনামূল্যে জনপ্রতি  ২ কেজি ভুট্টা বীজ ও ডিএমপি-২০কেজি ও এমওপি ১০ কেজি হারে রাসনায়িক সার বিতরণ করা হয় ।

অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্যে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জনাব মো. আনোয়ার সাদাত বলেন, কৃষিবান্ধব সরকার কৃষকের ফসল বেশি উৎপাদনের লক্ষ্যে আধুনিক কৃষি উপকরণ সহজলভ্য করার উদ্দেশ্যে যাবতীয় পণ্য সামগ্রী বিনামূল্য কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি দিয়ে বিতরণ করছেন। সেই সাথে বিভিন্ন ফসলের বীজও কৃষকের মাঝে বিতরণ করে আসছেন। এভাবে সরকারের দক্ষ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কৃষকদের আর্থ সামাজিক অবস্থা মজবুত করার লক্ষ্যে নানাবিধ কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত (মুন্না) বলেন, বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব সরকার। কৃষকের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের সুপরিকল্পিত এবং সময়োচিত পদক্ষেপে কৃষি উৎপাদনসহ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক হারে সাফল্য অর্জিত হচ্ছে। এতে কৃষকের আর্থ সামাজিক অবস্থার পরিবর্তনসহ কৃষিক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্য অর্জিত হয়েছে। ফলশ্রুতিতে কৃষিক্ষেত্রে দিনকে দিন উন্নয়নের জোয়ার পরিলক্ষিত হচ্ছে। এ জেলার খাদ্য ও  উৎপাদিত বিভিন্ন কৃষিপণ্য ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের প্রধান এই পেশাকে অধুনিকায়ন করতে হবে, তাহলে কৃষি ও কৃষক সমৃদ্ধ হবে। কৃষি ও কৃষক সমৃদ্ধ হলে, দেশ ও জাতি সমৃদ্ধশালী হবে। এ লক্ষ্য নিয়ে বর্তমান সরকার প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে যথারীতি বীজ ও সার বিতরণ করছে। কৃষি জমিতে কৃষি বিভাগের সঠিক দিক নির্দেশনার ফলে কৃষককূল সঠিকভাবে সার, বীজ, এবং সেচের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় দেশের কৃষির উন্নয়ন এগিয়ে চলেছে।

তিনি আগত সকল কৃষক কেযার যতটুকু   জমি আছে তাতেই কৃষি বিভাগের পরামর্শ মোতাবেক উন্নত আবাদেও মাধ্যমে নিজেদেও ভাগ্য পরিবর্তনের আহ্বান জানান। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকে হাতে প্রণোদনার বীজ ও সার তুলে দিয়ে এর শুভ উদ্বোধন করেন।

This post has already been read 269 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN