১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ সফর ১৪৪২
শিরোনাম :

নাটোরের সিংড়ায় কৃষকের মাঝে প্রনোদণার সার ও বীজ বিতরণ

Published at সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

মোছা. সুমনা আক্তারী (রাজশাহী): নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে শাকসবজি ও মাসকালাই ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে শাকসবজি বীজ এবং মাসকালাই বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) খরিপ-২ মৌসুমে প্রণোদনা  কর্মসূচির আওতায় এসব বীজ ও সার বিতরণ করা হয়।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রকিবুল হাসান -এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ-এর  প্রতিমন্ত্রী এড. জুনাইদ আহ্মেদ পলক এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত থেকে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে শাকসবজি, মাসকালাই বীজ ও রাসায়নিক সার এবংদুইটি করে গাছের চারা বিতরণ করেন । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিংড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস।

প্রণোদনা কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিংড়া উপজেলার কৃষি অফিসার, কৃষিবিদ মো. সাজ্জাদ হোসেন। তিনি বলেন, বর্তমান কৃষি বান্ধব সরকার কৃষি উন্নয়নে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে প্রনোদণা সহায়তা প্রদান করে চলেছেন।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমাদের জনসংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে তার সাথে বাড়ছে খাদ্য চাহিদা আর আবাদী জমির পরিমাণ কমছে। তাই আমাদের বিপুল জনগোষ্ঠির খাদ্য চাহিদা মেটানোর জন্য অল্প জমি থেকে ফসলের উৎপাদন বাড়াতে হবে। তাই বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার বিগত বছরের ন্যায় এবারও নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার ৪৮৫ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে প্রত্যেককে বিনামূল্যে শাকসবজি, মাসকালাই বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করেন প্রতিজন কৃষককে ০৫ কেজি বীজ, ১০ কেজি ডিএপি ও ০৫ কেজি এমওপি সার সহ লাল শাক-৫০ গ্রাম, ডাটা শাক-৫০ গ্রাম, কলমি শাক-৫০ গ্রাম, মূলা শাক-১০০ গ্রাম, পুইশাক-৫০ গ্রাম, পালং শাক-১০০ গ্রাম, শসা-০৩ গ্রাম, লাউ-০৫ গ্রাম, মিষ্টিকুমড়া-০৫ গ্রাম, করলা-১০ গ্রাম, মরিচ-০২ গ্রাম, বরবটি-১০ গ্রাম, সীম-৫০ গ্রাম, শাক সবজি ও মাসকালাই বীজ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বলেন,খাদ্য-পুষ্টি ও প্রোটিন এর চাহিদা বাড়াতে ধান ফসলের পাশাপাশি ডাল জাতীয় ফসলের আবাদ বাড়াতে হবে। সে জন্যে দেয় প্রনোদনার বীজ ও সার সঠিকভাবে যেন ব্যবহার করে মাসকলাই উৎপাদন বৃদ্ধিতে অগ্রণী ভুমিকা নিতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক ভাইদের আহবান জানান। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উপসহকারি উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা ডিপ্লোমা কৃষিবিদ কার্তিক চন্দ্র।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি অফিসের কর্মকর্তা- কর্মচারী, ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক এবং সাংবাদিক,  গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ শতাধিক জন উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 183 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN