৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০, ২৪ জিলক্বদ ১৪৪১
শিরোনাম :

কৃষকদের পর্যাপ্ত সার সরবরাহ এবং মজুদকৃত চিনি দ্রুত বিক্রয়ের নির্দেশ শিল্প মন্ত্রীর

Published at মে ১৪, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশন (বিসিআইসি)-এর আওতাধীন সার কারখানা ও বাফার গোডাউনসমূহে বর্তমানে ১০ লাখ মেট্রিক টন সার মজুদ আছে। করোনা পরিস্থিতি কৃষিজ উৎপাদন বৃদ্ধিতে দেশের সর্বত্র কৃষকদের নিকট পর্যাপ্ত সার সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। আজ (বৃহস্পতিবার, ১৪ মে) শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে চলমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পসমূহের বাস্তবায়ন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে দি কনির্দেশনামূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এমপি এসব কথা বলেন। করোনার বাস্তবতা মেনে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে দেশের অর্থনীতির চাকাকে গতিশীল রাখার আহবান জানান এ সময় শিল্পমন্ত্রী।

এছাড়া, তিনি বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের চিনিকলসমূহে মজুদ চিনি দ্রুত বিক্রয়ের ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দেন। এ জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিসিআইসি’র সার কারখানাসমূহে উৎপাদন কার্যক্রম অব্যাহত রাখার নির্দেশনা প্রদান করেন মন্ত্রী।

শিল্প মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী দূরদর্শিতার সাথে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণাসহ অন্যান্য নির্দেশনা প্রদান করছেন। এ সকল নির্দেশনার আলোকে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের ন্যায় শিল্প মন্ত্রণালয় ও এর অধীন দপ্তর-সংস্থা ও শিল্প প্রতিষ্ঠানকে কাজ করতে হবে।

শিল্প সচিব মো. আবদুল হালিমের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার রাষ্ট্রায়ত্ব চিনিকলগুলোকে লাভজনক করতে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনকে আরো তৎপর হবার নির্দেশনা প্রদান করেন। তিনি বলেন, সুগার কর্পোরেশনের অনুমোদন ছাড়া কোন চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্থায়ী বা অস্থায়ী কোনভাবেই কাউকে নিয়োগ দিতে পারবেননা।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চিনির উৎপাদন বাড়াতে উন্নত জাতের আখ উৎপাদন করতে হবে এবং আখ চাষিদের নিকট হতে ক্রয়কৃত আখের সঠিক হিসেব সংরক্ষণ করতে হবে। শিল্প প্রতিমন্ত্রী সারের অপচয় রোধে বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের নির্মাণাধীন বাফার গোডাউনসমূহের কাজ দ্রুত সমাপ্ত করা নির্দেশনা প্রদান করেন।

তিনি বলেন, বাফার গোডাউনসমূহের কাজ দ্রুত সমাপ্ত করার স্বার্থে আগামীতে দক্ষ ও অভিজ্ঞ দেশী স্টিল বিল্ডিং প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে হবে। তিনি লবণ চাষিদের রক্ষার্থে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক)-এর মাধ্যমে চাষিদের কাছ থেকে লবণ ক্রয় এবং বাংলাদেশ ষ্ট্যাণ্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউট (বিএসটিআই) কার্যক্রম নিয়মিত গণমাধ্যমে উপস্থাপন করার পরামর্শ প্রদান করেন।

সভায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তর-সংস্থাসমূহের প্রধানগণসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 333 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN