২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জুলাই ২০২০, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪১
শিরোনাম :

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্ব স্ব অবস্থানে থেকে সামাজিক দায়িত্ব পালন করতে হবে -কেসিসি মেয়র

Published at মার্চ ২২, ২০২০

ফকির শহিদুল ইসলাম(খুলনা) : করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে খুলনা নগর ভবনসহ নগরীর জনবহুল স্থানসমূহে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। খুলনা সিটি কর্পোরেশন, বিএনসিসি সুন্দরবন রেজিমেন্ট ও খ্রীষ্টান সার্ভিস সোসাইটি নগরবাসীর সুবিধাার্থে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। রবিবার (২২ মার্চ) বিকেলে নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে কেসিসি’র কঞ্জারভেন্সী বিভাগ, স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তাদের সাথে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

সভাপতির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, সকলের দায়িত্বশীল ভূমিকাই এই সংকট থেকে আমাদের মুক্তি দিতে পারে।  নিজেকে, নিজের আত্মীয়-স্বজন ও এলাকাবাসীকে বাঁচাতে সকলকে স্ব স্ব অবস্থানে থেকে সামাজিক দায়িত্ব পালন করতে হবে। পাশাপাশি সকলের স্বাস্থ্য সচেতনতা ও ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য পরিচর্যার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদেরকে বাধ্যতামূলকভাবে কোয়ারেন্টাইনে রাখার বিষয়ে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়া সিটি মেয়র কেসিসি’র সকল পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও শ্রমিকদের মাস্ক ব্যবহারের নির্দেশ দেন।

সভায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকলকে দিনে চার থেকে পাঁচ বার হাত ধোয়া, মাস্ক ব্যবহার এবং জনসমাগম এড়িয়ে চলতে নিরুৎসাহিত করতে সকলকে সচেতন করা এবং ডেঙ্গু ও চিকনগুনিয়া প্রতিরোধকল্পে মশক নিধন কার্যক্রম জোরদার রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা, সচিব মো: আজমুল হক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. একেএম আব্দুল্ল¬াহ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. আব্দুল আজিজ, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার হালদার, সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ শাম্মিউল ইসলাম, কঞ্জারভেন্সী অফিসার মো. আনিসুর রহমান, সহকারী কঞ্জারভেন্সী অফিসার নূরুন্নাহার এ্যানি, মো. আব্দুর রকীব, মোল¬া মারুফ রশীদ, শেখ হাফিজুর রহমান, মো. জিয়াউর রহমানসহ সিএসআই, কঞ্জারভেন্সী পরিদর্শক ও বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সকালে সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক নগরীর ২১নং ওয়ার্ড এলাকার বর্জ্য, পানি নিষ্কাশন ও ড্রেনেজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম সরেজমিন পর্যবেক্ষণ করেন। তিনি নগরীর ফরেস্ট ঘাট, কোর্ট এলাকা, জেনারেল হাসপাতাল ঘাট, খুলনা থানা মোড়, ডাকবাংলো মোড়সহ বড় বাজারের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে সিটি মেয়র এলাকার ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও পানি নিষ্কাশনের সুবিধার্থে ড্রেনগুলো সচল রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করেন এবং ড্রেনে আবর্জনা না ফেলার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহবান জানান।

কেসিসি’র কাউন্সিলর মো. শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন, ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, মো. আব্দুস সালাম, প্রধান প্রকৌশলী মো. এজাজ মোর্শেদ চৌধুরী, নির্বাহী প্রকৌশলী মশিউজ্জামান খান, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, কুয়েট-এর প্রতিনিধি প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান আলী, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন প্রকল্পের কনসালট্যান্ট ফার্ম ডিডিসি’র প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান, কেসিসি’র সহকারী কঞ্জারভেন্সী অফিসার নূরুন্নাহার এ্যানি প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 551 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN