২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৪ জুন ২০২০, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১
শিরোনাম :

করোনা আতঙ্কে কেউ যায়নি শিশুটির কাছে; পাশে দাঁড়ালেন পুলিশ

Published at এপ্রিল ১, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকার কেরাণীগঞ্জে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে ৯ বছরের এক ছেলে অজ্ঞান হয়ে পড়লে কেউ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়নি। এমন সংবাদ পেয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন আসাদুজ্জামান টিটু তার ফোর্স নিয়ে ছেলেটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। গত মঙ্গলবার বিকালে জিনজিরা হাউলি কবরস্থানের পাশে এমন দৃশ্য দেখা যায়।

পুলিশ জানায়, জিনজিরা হাউলি কবরস্থানের পাশে ছেলেটি জ্বর ক্ষুধার্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। অথচ সেখান দিয়ে হাজার হাজার মানুষ চলাচল করলেও করোনা ভাইরাসে ছেলেটি আক্রান্ত ভেবে ভয়ে কেউ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয় নি। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন আসাদুজ্জামান টিটু এমন সংবাদ পেয়ে সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স নিয়ে ছুটে যায় ছেলেটির কাছে। ছেলেটির অবস্থা আশঙ্কা দেখে মালঞ্চ হাসপাতাল থেকে এ্যাম্বুলেন্স এনে নিজেই শিশুটিকে ধরে এ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন তিনি।

কেরাণীগঞ্জ মডেল থানার ইন্সপেক্টর অপারেশন আসাদুজ্জামান টিটু বলেন, করোনা আতঙ্ক ও ক্ষুধার্ত শিশুটি অসুস্থ অবস্থায় অজ্ঞান হয়ে পড়ে থাকলে স্থানীয়রা কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় খবর দেন। দীর্ঘসময় শিশুটি অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকলেও ভয়ে কেউ শিশুটির কাছ পর্যন্ত আসেনি। কিন্তু আমরা পুলিশ ২৪ ঘন্টার জন্য মানুষের সেবায় নিয়োজিত।

যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা নিবেদিতপ্রাণ।  আমরা মানুষের বিপদকে পাশ কাটিয়ে যেতে পারি না, উপায়ন্তর না পেয়ে সহকর্মীদের নিয়ে নিজেই এ্যাম্বুলেন্স তুলে শিশুটিকে হাসপাতালে প্রেরণের ব্যবস্থা করেছি। শিশুটির নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি। সুস্থ স্বাভাবিক হলে শিশুটির পরিচয় জানা যাবে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শিশুটি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত নয় অন্য যেকোনো শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

This post has already been read 617 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN